আমাদের রাবেয়া-রোকেয়া ভালো আছে : বঙ্গবন্ধুকন্যা❤প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রোববার তাঁর কার্যালয়ে ফাস্ট ট্র্যাক প্রজেক্ট মনিটরিং
কমিটির সভার শুরুতে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে জোড়া মাথা আলাদা হওয়া রাবেয়া-রোকেয়ার ছবি সবাইকে দেখিয়ে তাদের শারিরীক সুস্থতার কথা জানান।

স্বাভাবিক জীবনে ফিরেছে পাবনার চাটমোহরের সেই রাবেয়া-রোকেয়া। দীর্ঘ ও জটিল চিকিৎসার শেষে শিশু দুটির জোড়া মাথা আলাদা করা হয়েছে। দুই সন্তানকে নিয়ে হাসিমুখে বাড়ি ফিরে গেছেন স্কুল শিক্ষক দম্পতি রফিকুল ইসলাম ও তাসলিমা খাতুন ।

রাবেয়া ও রোকেয়া ২০১৬ সালের ১৬ জুলাই মাথা জোড়া লাগা অবস্থায় জন্ম নেয়। গুরুতর এই শারিরীক ত্রুটি নিয়ে ছোট্ট শিশু দুটি চিকিৎসাধীন ছিল ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১৮ সালের ২৪ অক্টোবর ‘শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন এন্ড প্লাষ্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট’ উদ্বোধনকালে তাদের চিকিৎসার দায়িত্ব নেন। গঠন করা হয় মেডিকেল বোর্ড। চিকিৎসার জন্য তাদেরকে হাঙ্গেরির বুদাপেস্টের একটি হাসপাতালে সাত মাস রাখা হয়েছিল। বেশ কয়েক দফা অপারেশনও হয়েছিল শিশু দুটির।

সর্বশেষ, ২০১৯ সালের ২ আগস্ট ঢাকার সিএমএইচ হাসপাতালে ঘটে এক যুগান্তকারী ঘটনা। দেশের বিশেষজ্ঞ ডাক্তার ছাড়াও হাঙ্গেরির ৩৫ জন বিশেষজ্ঞ ডাক্তার টানা ৩৩ ঘন্টা অপারেশন চালিয়ে দুই বোনের জোড়া মাথা আলাদা করেন। সেই সার্জারির পর সিএমএইচ হাসপাতালে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাবেয়া-রোকেয়াকে দেখে আসেন।

আর আজ তিনি শিশু দুটির সুস্থ জীবনে ফিরে যাওয়ার কথা জানালেন। রোববার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ফাস্ট ট্র্যাক প্রজেক্ট মনিটরিং কমিটির সভার শুরুতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাদের ছবি সবাইকে দেখিয়ে বলেন- ‘আমাদের রাবেয়া-রোকেয়া ভালো আছে’।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *