করোনাকালে কৃষকের ধান কেটে দিয়েছে যশোর ক্যান্টনমেন্ট কলেজের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মচারীরা

কৃষিবান্ধব প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার অান্তরিক উদ্যোগের কারণে করোনাকালে শ্রমিকের অভাবে ধান কেটে গোলায় তুলতে সমস্যা পোহাতে হচ্ছে না বাংলাদেশের কৃষকের। তাঁর নির্দেশে আওয়ামী লীগ এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে কৃষকের ধান কেটে দিচ্ছেন। শুধু রাজনৈতিক নেতাকর্মীরাই নন, বঙ্গবন্ধুকন্যার আহ্বানে সাড়া দিয়ে এগিয়ে আসছেন শুভবোধসম্পন্ন মানুষ। কৃষক বাঁচলে বাঁচবে দেশ- এই বার্তা প্রাণে ধারণ করে দেশপ্রেমে উজ্জীবিত মানুষ যুথবদ্ধ হয়ে নেমে আসছেন ফসলের মাঠে। এ যেন প্রাণের তাগিদ!

এক নিদারুণ কর্তব্যবোধ! সব মায়া তুচ্ছ যেন এর কাছে! তাই স্বস্তির জীবন ফেলে বিপদ মাথায় নিয়ে কৃষকের পাশে দাঁড়াচ্ছেন তাঁরা নিঃশঙ্ক চিত্তে। দেশের সংকটে ভূমিকা রাখতে এবার এগিয়ে এলেন যশোর ক্যান্টনমেন্ট কলেজের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মচারীরা। আজ তাঁরা দোগাছিয়া গ্রামের কৃষকের পাশে দাঁড়িয়েছেন। নিজেদের সুরক্ষা নিশ্চিত করেই ধানক্ষেতে নেমেছিলেন তাঁরা, ৩ বিঘা জমির বোরো ধান কেটে তুলে দিয়েছেন কৃষকের গোলায়।

প্রাণঢালা অভিনন্দন রইল। যশোর ক্যান্টনমেন্ট কলেজ দৃষ্টান্ত হয়ে দাঁড়াক অন্যদের জন্য- রইল এই শুভকামনাও

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *