জ্বলছে পাকিস্তান, সেনা মোতায়েন

অনলাইন ডেস্ক

পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। এতে পুলিশের এক সদস্য নিহতসহ প্রায় দুইশ মানুষ আহত হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে ইসলামাবাদে সেনা মোতায়েনের নির্দেশ দিয়েছে দেশটির সরকার।

ধর্ম অবমাননার অভিযোগ তুলে আইনমন্ত্রীর অপসারণ দাবিতে তেহরিক-ই-লাবাইকের সংগঠনের নেতাকর্মীরা কয়েক সপ্তাহ ধরে ইসলামাবাদে সড়ক অবরোধ করে রাখে। শনিবার সকালে সেখান থেকে তাদের সরাতে গেলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সঙ্গে তাদের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। বিক্ষোভকারীরা রাস্তায় অবরোধ করে পুলিশের যানবাহনে আগুন ধরিয়ে দেয়। নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা এ সময় কাঁদানে গ্যাস ও রাবার বুলেট ছোড়ে। বিক্ষোভকারীদের দমাতে ব্যর্থ হয়ে ওই অভিযান স্থগিত করা হয়। পরে সেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নেয় সরকার।

অভিযানে পাকিস্তানের এলিট পুলিশ ও আধা সামরিক বাহিনীর প্রায় সাড়ে আট হাজার সদস্য অংশ নেয়।

নির্বাচনী শপথ থেকে হযরত মোহাম্মদ (স.) এর কথা বাদ দিয়ে আইনমন্ত্রী জাহিদ হামিদ ধর্ম অবমাননা করেছেন এমন অভিযোগ তুলে তার অপসারণ দাবি করে কট্টর ইসলামপন্থি সংগঠন তেহরিক-ই-লাবাইক।

পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম বলছে, বিক্ষোভকারীরা পাঞ্জাবে ওই মন্ত্রীর বাড়িতেও হামলা করেছে। তবে মন্ত্রী ও তার পরিবারের সদস্যরা সে সময় সেখানে ছিলেন না।

এএফপির খবরে বলা হয়, ইসলামাবাদের আশপাশের অন্যান্য শহরেও বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে। তবে ইসলামাবাদেই সবচেয়ে বড় বিক্ষোভ হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *