তিউনিসিয়ার সাগর থেকে ৪৮ জন অবৈধ অভিবাসীকে উদ্ধার করেছে

তিউনিসিয়ার উপকূলরক্ষীরা প্রতিবেশী লিবিয়া থেকে নৌযানে ইউরোপে পৌঁছানোর চেষ্টাকারী ৪৮ জন অবৈধ অভিবাসীকে উদ্ধার করেছে।
রেড ক্রিসেন্ট কর্মকর্তা মঙ্গি স্লিম শনিবার জানিয়েছেন, জারজিস উপকূলে তাদের নৌকা ভেঙ্গে যাওয়ার পর ১৫ জন মালির, ১৫ জন সিরিয়ার ও চার জন মিশরের নাগরিককে উদ্ধার করা হয়েছে। খবর এএফপি’র।
দারিদ্র্য ও সংঘাত থেকে বাঁচার পাওয়ার উদ্দেশে ইউরোপে পৌঁছানোর চেষ্টাকারী অভিবাসীদের জন্য লিবিয়া একটি প্রধান রুট হয়ে উঠেছে।
স্লিম বলেন, উদ্ধারকৃত অভিবাসীদের ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজেশন ফর মাইগ্রেশন (আইওএম) অফিসে হস্তান্তরের আগে এল কেতেফ বন্দরে নিয়ে যাওয়া হয়।
তিউনিসিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের পৃথক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, নৌবাহিনী বৃহস্পতিবার লিবিয়া থেকে আগত ১৪ থেকে ৩৩ বছর বয়সী ২৮ জন অভিবাসীকে জারজিস উপকূল থেকে উদ্ধার করেছে।
আইওএম জানিয়েছে, ২০১৪ সাল থেকে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপে পৌঁছানোর চেষ্টা করার সময় চলতি বছরে প্রায় ১,৭০০ জন অভিবাসীসহ ২৩,০০০ মানুষের প্রাণহানি ঘটেছে বা নিখোঁজ হয়েছে।
আইওএম মঙ্গলবার জানিয়েছে, গত সপ্তাহে লিবিয়ার উপকূলে নৌকা ডুবিতে অন্তত ১৬০ জন অভিবাসী মারা গেছে।
তিউনিসিয়ার উপকূল থেকে মাত্র ১৪০ কিলোমিটার (৯০ মাইলের চেয়ে কম) দূরে ইতালীয় দ্বীপ ল্যাম্পেডুসার অবস্থিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published.