ত্রাণের টাকায় দুর্নীতির সুযোগ নাই: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান বলেছেন, রমজান ও ঈদ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের ৫০ লাখ দরিদ্র পরিবারকে আড়াই হাজার টাকা করে এক হাজার ২৫০ কোটি টাকা অনুদান দিয়েছে। এই টাকা বিকাশ, নগদ, রকেট ও সিওর ক্যাশের মাধ্যমে সুবিধাভোগীদর মোবাইলে পাঠানো হয়েছে। সরাসরি মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে ত্রাণের টাকা দেওয়ায় অনিয়ম বা দুর্নীতি হওয়ার কোনও সুযোগ নাই।

বৃহস্পতিবার সাভার সদর ইউনিয়নের কলমা ওয়াজ আলী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ৪০০ অসহায় ও দুস্থ মানুষের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণকালে তিনি এই কথা বলেন।

ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, ‘এই অর্থ সহায়তা যদিও সামান্য তারপরও ঈদ উপলক্ষে বাংলাদেশের মতো একটি দেশের দরিদ্র মানুষদেরকে দেওয়া হয়েছে এক হাজার ২৫০ কোটি টাকা। সারা বিশ্বের কাছে এটি অনন্য দৃষ্টান্ত। এছাড়া পঞ্চাশ লাখ পরিবারকে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে ২০ কেজি করে চাল দেওয়া হবে। সিটি করপোরেশন ও পৌরসভা এলাকায় সাড়ে ১২ লাখ পরিবারকে দশ টাকা কেজি দরে চাল দেওয়া হবে।

১২ লাখ পরিবারকে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে ২০ কেজি করে চাল দেওয়া হবে এবং তিন লাখ বিশ হাজার পরিবারকে মৎস ও প্রাণি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে ভিজিএফ এর আওতায় ২০ কেজি করে চাল দেওয়া হবে।

তিনি আরও বলেন, ‘এই মে মাসে ঈদের আগেই পাঁচ কোটি লোক খাদ্য সহায়তা পাবে। বিতরণ করা ত্রাণ সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে চাল, ডাল, পেঁয়াজ, আলু, তেলসহ নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্য।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *