নতুন বিভাগ হলো ময়মনসিংহ

নতুন বিভাগ হলো ময়মনসিংহ। পূরণ হলো বৃহত্তর ময়মনসিংহের মানুষের দীর্ঘদিনের দাবি। বিদ্যমান ঢাকা বিভাগের ৪টি জেলা নিয়ে গঠিত হলো দেশের অষ্টম এই বিভাগ। ওই ৪টি জেলা হলোÑ ময়মনসিংহ, জামালপুর, শেরপুর ও নেত্রকোনা। গত ১৪ সেপ্টেম্বর সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস সংক্রান্ত জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির (নিকার) বৈঠকে নতুন এ বিভাগের অনুমোদন দেওয়া হয়। ফলে এ নিয়ে দেশে বিভাগের সংখ্যা দাঁড়াল ৮টিতে। বিভাগ ঘোষণার পর ওই দিন ময়মনসিংহ শহরের নতুনবাজার, গাঙ্গিনাপাড়, স্টেশন রোডের কৃষ্ণচূড়া চত্বর এলাকায় আনন্দ মিছিল করেন শহরবাসী। সাধারণ মানুষ রাস্তায় নেমে আসে। বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন মিষ্টি বিতরণ করে। বিভাগ বাস্তবায়নের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানান তারা।
‘হাওর জঙ্গল মইষের শিং, এই তিনে ময়মনসিংহ’Ñ প্রবাদ-প্রবচনে এভাবেই পরিচয় করানো হতো একসময় ভারতবর্ষে বৃহত্তম জেলা ময়মনসিংহকে। ভারতবর্ষের সেই বৃহত্তম জেলা সময়ের বিবর্তনে ছয় জেলায় রূপান্তরিত হয়। এই ছয় জেলা ঢাকা বিভাগের অন্তর্ভুক্ত ছিল। চলতি বছরের শুরুতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ময়মনসিংহকে আলাদা বিভাগ করার ঘোষণা দেন। নিকারের বৈঠকে ময়মনসিংহ বিভাগের অনুমোদন দেওয়া হয়। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোশাররাফ হোসাইন ভূইঞা বলেন, দেশের বিদ্যমান ৭টি বিভাগের সাথে ময়মনসিংহ বিভাগ যুক্ত হবে। গত ২৬ জানুয়ারি মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে ময়মনসিংহকে বিভাগ করার সিদ্ধান্ত হয়েছিল। ময়মনসিংহে প্রথমে দুটি বিভাগীয় দফতর হবে জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, প্রথমে বিভাগীয় কমিশনার অফিস ও রেঞ্জ ডিআইজি পুলিশের অফিস স্থাপন হবে। পরে পর্যায়ক্রমে সব বিভাগীয় দফতর হবে সেখানে। বিভাগের হেডকোয়ার্টার্স হবে ময়মনসিংহ শহরে। ময়মনসিংহ বিভাগের আয়তন ১০ হাজার ৫৮৪ বর্গকিলোমিটার। এই বিভাগের জনসংখ্যা হবে ১ কোটি ১৩ লাখ ৬৯ হাজার ৬০৬ জন। ময়মনসিংহকে বিভাগ ঘোষণার আগ পর্যন্ত ঢাকা বিভাগে ১৭টি জেলা ছিল। ঢাকা বিভাগ ভেঙে নতুন বিভাগ হওয়ায় ১৩ জেলা নিয়ে ঢাকা বিভাগকে পুনর্গঠন করা হবে। পর্যায়ক্রমে ঢাকা বিভাগকে ভেঙে ফরিদপুর, চট্টগ্রামকে ভেঙে কুমিল্লা বিভাগ করার পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানান সচিব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *