‘বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশ, মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতা সমার্থক

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশ, মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতা সমার্থক। বাংলাদেশ ও এদেশের মানুষের প্রতি ছিল তার সীমাহীন দরদ ও ভালোবাসা। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ, লক্ষ্য বাস্তবায়িত হলেই তার প্রতি প্রকৃত শ্রদ্ধা ও সম্মান দেখানো হবে। তার আদর্শ বাস্তবায়নে শপথ নিতে হবে।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ড প্রাঙ্গণে বঙ্গবন্ধুর জীবন ও দর্শনের ওপর আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু জাতিকে সচেতন ও জাগ্রত করেছিলেন, ঐক্যবদ্ধ করেছিলেন এবং নেতৃত্ব দিয়ে দেশকে স্বাধীন করেছিলেন। বঙ্গবন্ধু শোষণ-নিপীড়নমুক্ত উন্নত সমৃদ্ধ সোনারবাংলা গড়তে চেয়েছিলেন। সে লক্ষ্য ও আদর্শ বাস্তবায়নে সবাইকে কাজ করতে হবে।

বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ড বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদৎবার্ষিকী উপলক্ষে এ আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

কারিগরি ও মাদরাসা বিভাগের সচিব মো. আলমগীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারি ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. সোহরাব হোসাইন, কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. অশোক কুমার বিশ্বাস এবং বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ড. মো. মোস্তাফিজুর রহমান বক্তৃতা করেন। আলোচনা সভায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন পিকেএসএফ এর চেয়ারম্যান ড. কাজী খলীকুজ্জামান আহমেদ।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমাদের ইতিহাসের সবচেয়ে গৌরবোজ্জ্বল অধ্যায় হচ্ছে আমাদের মুক্তিযুদ্ধ, আমাদের স্বাধীনতা। আর এ শ্রেষ্ঠ অধ্যায়ের মহানায়ক হলেন হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি  জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

নতুন প্রজন্মকে কারিগরি শিক্ষা গ্রহণে এগিয়ে আসার আহ্বান  জানিয়ে তিনি বলেন, বর্তমানে শতকরা ১৪ ভাগ শিক্ষার্থী কারিগরি বিষযে পড়াশুনা করছে। ২০২০ সালে এ সংখ্যা শতকরা ৩০ ভাগ ছাড়িয়ে যাবে এবং ২০৩০ সালে তা ৩০ ভাগে উন্নীত হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *