বাঙালির কাঙ্খিত স্বাধীনতা অর্জনের মাস শুরু

শুরু হল বিজয়ের মাস। নানা ঘাত-প্রতিঘাত পেরিয়ে নিজস্ব সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য অক্ষুন্ন রেখে এ মাসেই বাঙালি অর্জন করে তার কাঙ্ক্ষিত স্বাধীনতা। দুর্বিনীত প্রাণশক্তির বাঙালি কিভাবে অর্জন করলো মুক্ত স্বদেশ!

শ্যামল-কোমল বাংলাদেশ। পলিমাটির সৌরভে একটু একটু করে জেগে ওঠা বদ্বীপ। প্রাগৈতিহাসিক কাল থেকে এই মাটির পোষণে, প্রকৃতির লালনে পুষ্ট হয়েছে বাঙালি। ভালোও বেসেছে কাঁদামাটিকে। তবু এই জাতিকে স্বপ্নের অবিরাম ভাঙ্গাগড়ার মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে। শক্রর দল বারে বারে আঘাত হেনেছে বাঙালির সমৃদ্ধ দুয়ারে।

স্বাধীনতার প্রথম সূর্য অস্তমিত হয় ১৭৫৭সালে। শুরু হয় দুশো বছরের ব্রিটিশ শাসন। সেটাই শুরু কিংবা শেষ নয়। ভিন্ন ভিন্ন জাতি ও বণিক শ্রেণি শাসন ও শোষণ করেছে বঙ্গভূমিকে। ১৯৪৭ এ জন্ম হয় পাকিস্তান নামক রাষ্ট্রের। শুরুতে বিভেদ বৈষম্য; বাঙালি বনাম অবাঙ্গালি। প্রথমেই আসে ভাষার প্রশ্ন। দ্বিধাহীন বাঙালি। রক্ত ঝরিয়েছে। আপস তো করেনি। আর তাতেই বাহান্নতে আসে প্রথম জয়। বিদ্রোহী বাংলা ফিরে আর তাকায়নি পেছনে।

এর মধ্য দিয়ে বাঙালি জীবনে আসে ১৯৭১। জন্মলগ্নের বেদনা আর যুগদুর্লভ স্বপ্নে শুরু হয় সাধারণ মানুষের অসাধারণ যোদ্ধা হয়ে ওঠার ইতিহাস। অবশেষে কাল নিরবধি উজান স্রোত ঠেলে স্বাধীন দেশ পেল বাঙালি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.