বাসায় অক্সিজেন সিলিন্ডার: স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মানা

করোনা চিকিৎসায় অক্সিজেন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু বর্তমানে পরিলক্ষিত হচ্ছে, অনেকেই বাসায় অক্সিজেন সিলিন্ডার কিনে মজুত করছেন করোনা চিকিৎসায় ব্যবহারের জন্য। যা ঠিক নয়। কারণ অক্সিজেন থেরাপি একটি কারিগরি বিষয়। দক্ষ চিকিৎসক ব্যতীত অন্য কেউ অক্সিজেন রোগীকে প্রয়োগ করলে তা রোগীর জন্য ক্ষতির কারণ হতে পারে।

মঙ্গলবার (৯ জুন) দুপুরে রাজধানীর মহাখালীতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে মিডিয়া বুলেটিনে এ তথ্য জানান অতিরিক্ত মহা-পরিচালক অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা।

অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা বলেন, ‘করোনা চিকিৎসার অনেক ক্ষেত্রে হাই ফ্লো অক্সিজেন দিতে হয়। যা বাসায় দেয়া সম্ভব নয়। তাই জনসাধারণের নিকট অনুরোধ, আপনারা অযথা বাসায় অক্সিজেন কিনে মজুত করবেন না। কারণ তা বাজারে অক্সিজেন সিলিন্ডারের কৃত্রিম সংকট তৈরি করবে এবং হাসপাতালের মুমূর্ষু রোগী অক্সিজেন পাওয়া থেকে বঞ্চিত হবেন, যা কাম্য নয়।’

বিষয়টি ব্যাখ্যা করে তিনি বলেন, ‘অক্সিজেন থেরাপিতে প্রত্যেক মিনিটে কত এমএল অক্সিজেন যাবে, এটা শুধুমাত্র চিকিৎসকই নির্ধারণ করে দেন। একজন টেকনোলজিস্টই পারেন কীভাবে এই অক্সিজেন সিলিন্ডার মেজারমেন্ট হবে। কাজেই আমরা যেন নিজের বিপদ নিজে ডেকে না আনি। অক্সিজেন সিলিন্ডার বাসায় দক্ষ চিকিৎসক এবং টেকনোলজিস্ট ব্যতীত ব্যবহার না করি।

বাসায় অক্সিজেন মজুত করা থেকে বিরত থাকি। হয়তো আপনার নিকট কোনো আত্মীয় মজুত রাখার জন্য হাসপাতালে অক্সিজেন সংকটে ভুগতে পারে। তার অন্য কোনো অসুবিধাও হয়ে যেতে পারে। কাজেই আপনাদের কাছে বিনীত অনুরোধ, মেডিকেল জিনিসপত্র বাসায় অযথা মজুত করবেন না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.