শীর্ষ বিশ্ব নেতাদের তালিকায় প্রথম সারিতে শেখ হাসিনা

মার্কিন সাময়িকী ফরচুন-এর ‘ওয়ার্ল্ডস গ্রেটেস্ট লিডারস’-এর তালিকায় শীর্ষ দশে স্থান পেয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গত ২৪ মার্চ সাময়িকীটির ওয়েবসাইটে এই তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। ফরচুনের বিশ্বের সেরা নেতৃত্বের তালিকায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অবস্থান ১০ নম্বরে। এতে শীর্ষ স্থান দখল করেছেন মার্কিন উদ্যোক্তা জেফ বিজোস।
সাময়িকীটির ওয়েবসাইটে তালিকায় স্থানপ্রাপ্তদের নাম প্রকাশ করে বলা হয়Ñ ব্যবসা, সরকার ব্যবস্থা, বিশ্বপ্রীতি ও কলায় এবং সারাবিশ্বে এই মানুষগুলো পরিবর্তন আনছেন, একই সাথে অন্যদেরও তা করতে অনুপ্রেরণা দিয়ে চলেছেন। শীর্ষ ৫০ জনের মধ্যে তালিকায় জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মার্কেল রয়েছেন দ্বিতীয় অবস্থানে। এরপর তিন নম্বরে আছেন মিয়ানমারের গণতন্ত্রের প্রতীক অং সান সু চি। তালিকার চার নম্বরে রয়েছেন পোপ ফ্রান্সিস, পাঁচে অ্যাপলের নির্বাহী টিম কুক, ছয়ে জন লিজেন্ড, তালিকার সাত নম্বরে রয়েছেন জাতিসংঘের ফ্রেমওয়ার্ক কনভেনশন অন কাইমেট চেঞ্জের নির্বাহী সচিব ক্রিস্টিনা ফিগারেস, আটে রয়েছেন পাউল রায়ান এবং নয় নম্বরে আছেন মার্কিন সুপ্রিমকোর্টের অ্যাসোসিয়েট জাস্টিস রুথ বাদের গিন্সবার্গ।

প্রধানমন্ত্রীকে আইএফআরসি’র সম্মাননা সনদ
দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় অসামান্য সাফল্যের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বিশেষ সম্মাননা সনদ ও ক্রেস্ট দিয়েছে আন্তর্জাতিক ফেডারেশন অব রেড ক্রস অ্যান্ড রেড ক্রিসেন্ট (আইএফআরসি)। আইএফআরসির মহাসচিব আলহাজ আস সাই গত ১ মার্চ গণভবনে এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রধানমন্ত্রীকে এই সনদ ও ক্রেস্ট তুলে দেন।
অনুষ্ঠানে আইএফআরসির মহাসচিব বিশ্বে দুর্যোগাক্রান্ত ১০০ কোটি মানুষকে ২০২৫ সালের মধ্যে আরও দুর্যোগ সহনীয় হিসেবে উত্তরণে বৈশ্বিক প্রয়াসে অগ্রণী ভূমিকা পালনের জন্য প্রধানমন্ত্রীর ভূয়সী প্রশংসা করেন।
আইএফআরসির এশীয় প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের পরিচালক জেভিয়ার কাস্টেলেনস, বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির চেয়ারম্যান হাফিজ আহমেদ মজুমদার ও ভাইস চেয়ারম্যান ডা. হাবিবে মিল্লাত এমপি অন্যদের মধ্যে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

সুখী দেশের তালিকায় বাংলাদেশ
ভারত ও পাকিস্তানের চেয়ে অনেক এগিয়ে
বিশ্বের সবচেয়ে সুখী দেশ ইউরোপের ডেনমার্ক। দ্বিতীয় ও তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে একই মহাদেশের সুইজারল্যান্ড ও আইসল্যান্ড। ১৫৭ দেশের এই দীর্ঘ তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ৭০তম। তালিকার সবচেয়ে অসুখী দেশ বুরুন্ডি। জাতিসংঘের টেকসই উন্নয়ন সমাধান নেটওয়ার্ক (এসডিএসএন) প্রকশিত ওয়ার্ল্ড হ্যাপিনেস রিপোর্ট আপডেট ২০১৬-এর তালিকায় এই তথ্য উঠে এসেছে। গত ১৬ মার্চ ইতালির রোম থেকে প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হয়। তবে বাংলাদেশের প্রতিবেশী দেশ ভারত ও পাকিস্তানের অবস্থান সূচকের বেশ নিচে। সূচকে ভারত ১১৮ ও পাকিস্তান ৯২ নম্বরে। ১৩ নম্বরে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। সার্বিক বিবেচনায় বেশ সুখী বলেই তালিকায় বিবেচিত হয়েছে দেশটি। সে তুলনায় অনেক পিছিয়ে আছে যুক্তরাজ্য (২৩), জাপান (৫৩), রাশিয়া (৫৬) ও চীন (৮৩)। তবে সবচেয়ে অসুখী দেশ বুরুন্ডির চেয়ে একটু এগিয়ে রয়েছে সিরিয়া (১৫৬) এবং আফগানিস্তান (১৫৪)। দীর্ঘায়ু, দুর্নীতির নি¤œমাত্রা এবং জীবনপন্থা নির্বাচনে স্বাধীনতা, সামাজিক সুযোগ ও সহযোগিতা, হৃদ্যতা, সুখভোগের বৈষম্যের স্বল্পমাত্রা, মাথাপিছু আয়ের মতো বিষয়গুলো বিবেচনায় নিয়ে সুখী দেশগুলোর এই তালিকা তৈরি করা হয়েছে। এ সংক্রান্ত প্রতিবেদনে বলা হয়, মানবকল্যাণের সঠিক মূল্যায়নে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, দারিদ্র্য, আয় এবং সুশাসন পৃথকভাবে পরিমাপের চেয়ে মানুষের সুখ পরিমাপই উন্নততর মাপকাঠি হতে পারে। বলা হয়, সামাজিক অগ্রগতি এবং সরকারি নীতির লক্ষ্য হিসেবে সুখ একটি সঠিক মাপকাঠি হিসেবে দিন দিন বেশি গুরুত্ব পাচ্ছে। বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এবং সরকারি-বেসরকারি গবেষকদের সমন্বয়ে এসডিএসএন ২০১২ সালে যাত্রা শুরু করে। এ বছর তারা চতুর্থবারের মতো ওয়ার্ল্ড হ্যাপিনেস রিপোর্ট প্রকাশ করল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *