সেনাবাহিনী মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় এগিয়ে যাবে

নয়া সেনাপ্রধানকে র‌্যাংক ব্যাজ পরানোর অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে সারাদেশবাসীর গর্ব হিসেবে উল্লেখ করে বলেছেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সমুন্নত রেখে সামনে এগিয়ে যাবে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধে আমরা বিজয়ী জাতি। মুক্তিযুদ্ধের সময়ে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ করে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী সামনের দিকে এগিয়ে যাবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। প্রধানমন্ত্রী গত ২৫ জুন বিকেলে তার সরকারি বাসভবন গণভবনে নবনিযুক্ত সেনাবাহিনী প্রধান আবু বেলাল মোহম্মদ শফিউল হককে র‌্যাংক ব্যাজ পরিয়ে দেওয়ার পর তাকে অভিনন্দন জানিয়ে এ কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে নৌবাহিনী প্রধান ভাইস এডমিরাল এম ফরিদ হাবিব এবং বিমানবাহিনী প্রধান এয়ার মার্শাল আবু এসরার নবনিযুক্ত সেনাবাহিনী প্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল আবু বেলাল মোহম্মদ শফিউল হককে জেনারেল র‌্যাংক ব্যাজ পরিয়ে দেন।
জেনারেল বেলালের জন্ম ১৯৫৮ সালে। ১৯৭৮ সালের ১৮ জুন তিনি বাংলাদেশ মিলিটারি একাডেমি থেকে সেনাবাহিনীর আর্মার্ড কোরে কমিশন লাভ করেন। ওই ব্যাচের সেরা ‘অলরাউন্ড ক্যাডেট’ হিসেবে তিনি ‘সোর্ড অব অনার’ পুরস্কার পান। তিনি জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা বাহিনীর কমান্ডার হিসেবে ইরাক, ইথিওপিয়া ও ইরিত্রিয়ায় কাজ করেছেন।
জেনারেল বেলাল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিএ এবং জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ‘ডিফেন্স স্টাডিজ’ বিষয়ে এমএ ডিগ্রি অর্জন করেন, ‘ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস’ থেকে দর্শনে এমএ ডিগ্রি নেন। একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *