হৃদয়ে মুক্তিযুদ্ধঃ ১৩ ই মার্চ ১৯৭১, ভাষানী বললেন ,”বর্তমানে পূর্ব বাংলা মুলতঃ স্বাধীন” ।

দিন যত যাচ্ছে ততই তীব্র হয়ে উঠছে বাঙ্গলীর অসহযোগ আন্দোলন । প্রতি দিনই আন্দোলনে যোগ দিচ্ছে বিভিন্ন শ্রেনী- পেশার মানুষ ।অফিস আদালত ফেলে সকাল থেকে রাত অব্দি মুখুর করে রাজপথে চলছে মিছিল সমাবেশ।

গত কয়েক দিন ধরেই বাংলাদেশ থেকে বিদেশী কূটনীতিকদের সরিয়ে নেয়ার গুন্জন শোনা যাচ্ছিল আজ তা সত্যি হল ।ঢকার জাতিসংঘ ও পশ্চিম জার্মানি দূতাবাসের কর্মকর্তা -কর্মচারি , তাদের পরিবারসহ ইটালি,ফ্রান্স ,যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও কানাডার ২৬৫ নাগরিক এ দিন বিশেষ বিমানে ঢাকা ছাড়েন ।

সামরিক জান্তা ১৫ই মার্চ সকাল ১০টার মধ্যে সামরিক বিভাগের বেসামরিক কর্মকর্তাদের কাজে যোগদানের নির্দেশ দেয়।অন্যথায় নির্দশ অমান্যকারিদের চাকুরিচ্যুত ও পলাতক দেখিয়ে সামরিক আদালতে বিচারে হুমকি দেয়া হয় ।
সামরিক এ নির্ডেশে বিক্ষোভে ফেটে পড়ে সারা দেশ । বঙ্গবন্ধু এক বিবৃতিতে সামরিক জান্তার প্রতি উস্কানিমুলক তৎপরতা থেকে বিরত থাকার আহবান জানিয়ে বলেন ,” জনগনকে যত ভয়ই দেখানো হোকনা কেন তারা আন্দোলন চালিয়ে যাবে ”।

বরেণ্য শিল্পী জয়নূল আবদীন ও জাতীয় পরিষদ সদস্য আব্দুল হাকিম ১৯৭১ সালের এই দিন পাকিস্তান সরকারের দেওয়া পদক ও খেতাব বর্জন করেন ।

ভৈরবে এক জনসভায় ন্যাপ প্রধান মাওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাষানী বলেন ,”পূর্ব বাংলা এখন মুলত স্বাধীন ,বাঙ্গালী এখন একটি পূর্নাঙ্গ সরকার গঠনের অপেক্ষায়” ।

লাহোরে সংখ্যালগিষ্ট ৫ টি দলের পার্লামেন্টারি পার্টির নেতারা এ দিন সামরি শাসন প্রত্যাহার করে বঙ্গবন্ধুর কাছে ক্ষমতা হস্তান্তরের দাবী জানান ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *