‘৭১: মনে আছে কি সেই “দি বাংলাদেশ লিবারেশন কাউন্সিল অফ ইনটেলিজেন্সিয়া”র কথা–কিছু অদেখা ডকুমেন্ট

“The world is a dangerous place to live, not because of the people who are evil, but because of the people who don’t do anything about it.” — Albert Einstein

“দি বাংলাদেশ লিবারেশন কাউন্সিল অফ ইনটেলিজেন্সিয়া” গঠিত হয় ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধ শুরুর পর বাংলাদেশ থেকে প্রাণ নিয়ে পালিয়ে যাওয়া শিক্ষক,বিজ্ঞানি,কবি,সাহিত্তিক,শিল্পি,লেখক,সাংবাদিক,অভিনেতা সহ বিভিন্ন পেশার গুণী মানুষ নিয়ে।কাউন্সিল গঠনের মূল উদ্দেশ্য ছিল বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধকে সাহায্য করা এবং পাকিস্থানি সেনা ও তাদের দোসরদের নির্মমতার ঘটনা সারা দুনিয়ার মানুষের কাছে তুলে ধরা।

এ কাউন্সিলের বেশ কিছু কিছু ডকুমেন্ট পাওয়া যায় “ভার্চুয়াল বাংলাদেশ” ওয়েবসাইটে যা সরবরাহ করেছেন ঐ কাউন্সিলের যুগ্ন-সম্পাদক ড.বেলায়েত হোসেন।

“দি বাংলাদেশ লিবারেশন কাউন্সিল অফ ইনটেলিজেন্সিয়া” র কমিটি ছিল

সভাপতি
ড.এ.আর.মল্লিক–ভিসি,চিটাগাং ইউনিভার্সিটি

সহ-সভাপতি
ড.কে.এস.মুরশেদ–বিভাগীয় প্রধান,ইংরেজি,ঢাকা ইউনিভার্সিটি
প্রফেসর আলী আবসার–বিভাগীয় প্রধান,বাংলা,চিটাগাং ইউনিভা্সিটি
কামরুল হাসান–চিত্র শিল্পী
রনেশ দাশ গুপ্ত–সাংবাদিক

সাধারন সম্পাদক
জহির রায়হান–নাট্যকর ও চিত্র পরিচালক

যুগ্ন-সম্পাদক
ড.বেলায়েত হোসেন

সম্পাদকমণ্ডলী
হাসান ইমাম–অভিনেতা
সাদেক খান–শিল্প সমলোচক
মওদুদ আহমেদ–ব্যারিস্টার
ড.মতিলাল পাল–অর্থনীতিবিদ
ব্রজেন দাশ–ক্রীড়াবিদ
ওয়াহিদুল হক–সংগিত শিল্পী এবং সাংবাদিক
আলমগির কবির–সাংবাদিক
অনুপম সেন–সমাজ বিজ্ঞানী
ফয়েজ আহমেদ–সাংবাদিক
এম.এ.খায়ের–চিত্র পরিচালক
কামাল লোহানি–সাংবাদিক
মুস্তফা মনোয়ার–চিত্র শিল্পী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *